​বিশ্বে যা কিছু মহান সৃষ্টি চির কল্যাণকর,
অর্ধেক তার করিয়াছে নারী, অর্ধেক তার নর...


 কবি নজরুল ইসলামের এই পংক্তিমালাকে হৃদয়ে ধারণ করেই শুরু হয়েছে নারী’র পথচলা। এটি নারীবাদী নয়, একটি নারীবান্ধব ম্যাগাজিন। সারা বিশ্বের নারীদের অজানা কথা, সুখ-দুঃখ, সাফল্য-সংগ্রাম, সংস্কৃতি এবং অধিকারসহ বিভিন্ন প্রসঙ্গ তুলে ধরার পরিকল্পনা থাকলেও মূলতঃ প্রাধান্য পাবে দক্ষিণ এশীয় নারীদের প্রসঙ্গ। সমাজে অনেক বাঁধা-বিপত্তি মোকাবেলা করেই পথ চলতে হয় নারীদের। তাই ধর্ম-বর্ণ-গোত্র, ধনী-দরিদ্র নির্বিশেষে সকল নারীর কথা তুলে ধরার চেষ্টা অব্যাহত থাকবে আমাদের। নারীকে নিয়ে লিখুন আপনিও। উপন্যাস, গল্প, কবিতা, জীবনী, ফিচার, ভ্রমণ, সঙ্গীত, চলচ্চিত্র, চিকিৎসা, রূপচর্চা, রান্না... নারী লেখকের জন্য উন্মুক্ত সব পাতা।  পুরুষ লেখকগণও লিখতে পারেন নারী সংশ্লিষ্ট যে কোন বিষয় নিয়ে। নারীকে নিয়ে আপনার যে কোন ভাবনা, মতামত, পরামর্শ এবং তথ্য লিখে পাঠিয়ে দিন নারী’র ই-মেইলে। E-mail: nariusainc@gmail.com


*******


যেভাবে যাবেন পত্রিকার পাতায়ঃ অনেকেই অভিযোগ করেন, পত্রিকা দেখতে পারেন না। তাদের অবগতির জন্য বলছি, উপরের টুলবার থেকে MAGAZINE-এ ক্লিক করুন। দেখুন ওপেন হয়ে গেছে প্রতি সংখ্যার প্রচ্ছদ পাতা। এবার যে ইস্যুটি দেখতে চান, তার উপরে কারসর নিয়ে গিয়ে ক্লিক করুন। ওপেন হয়ে যাবে ভিতরের পাতাগুলি।  এবার প্রথম পাতাটিতে ক্লিক করুন, এরপর ১০ সেকেন্ড পর পর স্লাইড শো'র মাধ্যমে চলে আসবে একটির পর একটি পাতা।


*******


NARI is a monthly magazine about women’s issues- published in New York. You can write on women and send your articles to the magazine. You can write your articles in English too, as we use English and Bangla both. You can also send pictures related to your articles. Send the articles as MS word documents to this e-mail: nariusainc@gmail.com


*******













Publisher: Tapan Chowdhury

VOICE OF WOMEN

Editor: Popy Chowdhury


নারী’র প্রথম বর্ষপূর্তি অনুষ্ঠান

২৮ অক্টোবর জ্যাকসন হাইট্স-এর জুইশ সেন্টার মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয়ে গেল ‘নারী’ ম্যাগাজিনের প্রথম বর্ষপূর্তি অনুষ্ঠান। অনুষ্ঠানে নিউ ইয়র্কসহ যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে আগত সাংস্কৃতিক, সামাজিক, রাজনৈতিক ও সুশীল সমাজের বিশিষ্টজন উপস্থিত ছিলেন।

দিঠি হাসনাতের গাওয়া একটি মঙ্গল সঙ্গীত দিয়ে শুরু হয় বর্ষপূর্তির অনুষ্ঠান। এরপর জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের ‘নারী’ কবিতা আবৃত্তি করে শোনান নিউ ইয়র্কের জনপ্রিয় ছড়াকার মঞ্জুর কাদের ও সাবিনা শারমিন নিহার। বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ‘চিত্রাঙ্গদা’ আবৃত্তি করে শোনান অনুষ্ঠানের উপস্থাপক লুবনা কাইজার।

`নারী’ পত্রিকার সম্পাদক পপি চৌধুরী স্বাগত বক্তব্যে ‘নারী’ প্রকাশের উদ্যোগের কথা তুলে ধরে পত্রিকাটি প্রকাশে যারা পৃষ্ঠপোষকতা এবং বিজ্ঞাপন দিয়ে সহযোগিতা করে আসছেন তাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। অনুষ্ঠানে শুভেচ্ছা বক্তব্য প্রদান করেন ‘নারী’র প্রকাশক তপন চৌধুরী।

এরপর গত এক বছরে প্রয়াত বাংলা সাহিত্যের ছয়জন প্রখ্যাত লেখকের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করে তাদের রচনা থেকে অংশবিশেষ পাঠ করা হয়। যাদের লেখা থেকে পাঠ করা হয় তাঁরা হলেন সব্যসাচী লেখক সৈয়দ শামসুল হক, কবি শহীদ কাদরী, ‘বেগম’ সম্পাদক নূরজাহান বেগম, কবি রফিক আজাদ, ঔপন্যাসিক মহাশ্বেতা দেবী ও সুচিত্রা ভট্টাচার্য। পাঠে অংশ নেন- লুৎফুন নাহার লতা, গোপন সাহা, শুক্লা রায়, ধনঞ্জয় সাহা, নাজনীন সীমন, ক্লারা রোজারিও, নাজনীন মামুন এবং আশরাফুন্নাহার লিউজা।

জনাকীর্ণ এই অনুষ্ঠানে সমাজের বিভিন্ন ক্ষেত্রে অসামান্য অবদান রাখা পাঁচ বাংলাদেশী নারীকে সম্মাননা দেওয়া হয়। পাশাপাশি আরো চার নারীকে তাদের বিশেষ কর্মের জন্য স্বীকৃতি জানানো হয়। সম্মাননা পাওয়া নারীরা হলেন: সাংবাদিক-সমাজসেবক নূরজাহান কাদের, লেখক-সাংবাদিক দিলারা হাশেম, লেখক-সমাজসেবক নূরজাহান বোস, নাট্যজন রেখা আহমেদ এবং শিক্ষক ও সমাজসেবক তাহমিনা জামান। বিশেষ কর্মের স্বীকৃতিপ্রাপ্ত নারীরা হলেন: লিজি রহমান, আলেয়া চৌধুরী, রুবাইয়া রহমান এবং রোকেয়া আক্তার।

সম্মাননাপ্রাপ্ত পাঁচ নারীর জীবন বৃত্তান্ত তুলে ধরেন বাংলা একাডেমি পুরস্কারপ্্রাপ্ত লেখক এবং নারী’র উপদেষ্টা সম্পাদক পূরবী বসু, ভয়েস অফ আমেরিকার বাংলা বিভাগের প্রধান এবং নারী’র প্রধান উপদেষ্টা রোকেয়া হায়দার, নারী’র উপদেষ্টা সিনিয়র ল কনসালটেন্ট নাসরিন আহমেদ, লেখক লিজি রহমান এবং সাংবাদিক মনিজা রহমান। সম্মাননা পাওয়া নারীদের হাতে সম্মাননা স্মারক তুলে দেন বাংলাদেশ উদীচি কেন্দ্রীয় সভাপতি কামাল লোহানী এবং একুশে পদকপ্রাপ্ত লেখক জ্যোতিপ্রকাশ দত্ত।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- নারী’র ল্-এ্যাডভাইজার এ্যাটর্নী অশোক কে. কর্মকার, প্রবীণ সাংবাদিক সৈয়দ মোহাম্মদ উল্লাহ দম্পতি, বাংলাদেশ সোসাইটির সাবেক সভাপতি নার্গিস আহমেদ, খান্স টিউটোরিয়াল-এর পরিচালক এবং নারী’র উপদেষ্টা নাঈমা খান, লেখক বেলাল বেগ, কবি শাম্স আল মমিন, লেখক শাহাব আহমেদ, লেখক আবু রায়হান দম্পতি, কবি তমিজ উদ্দীন লোদি, কবি সালেম সুলেরী, লেখক নাসরিন চৌধুরী, কবি মিশুক সেলিম, লেখক আদনান সৈয়দ, লেখক এবি এম সালেহউদ্দিন, লেখক জেসমিন আরা দম্পতি, বাংলাদেশ কালচারাল সোসাইটির সাধারণ সম্পাদক রোজী আকতার, স্পেকট্রাম আইটি সার্ভিস-এর কর্ণধার এবং চার্চ ম্যাগডোনাল্ড বাংলাদেশী বিজনেস এসোসিয়েশনের সাবেক সভাপতি আব্দুর রব চৌধুরী দম্পতি, বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্র ইউএসএ পরিচালক মাহফুজা বেগম, রংপুর জেলা এসোসিয়েশনের প্রেসিডেন্ট রাজু আহমেদ দম্পতি, গ্রেটার খুলনা সমিতি’র সাধারণ সম্পাদক মুরারী মোহন দাস ও সহ-সভাপতি ফারুকুল ইসলাম দম্পতি, রাজনীতিবিদ ও লেখক শামসুদ্দিন আজাদ, প্রগ্রেসিভ ফোরাম-এর সভাপতি খোরশেদুল ইসলাম, জাতীয় পার্টির ফর্মার এমপি কবি লিয়াকত আলী দম্পতি, ক্লাব সনম এবং সনম টিভির পরিচালক খন্দকার কাদের, মিসেস তৌফিক কাদের, নারী নেত্রী অধ্যাপক হুসনে আরা বেগম, কমিউনিটি অ্যাক্টিভিস্ট আব্দুস শহীদ, বাংলাদেশ হিউম্যান রাইটস-এর নিউ ইয়র্ক শাখার প্রেসিডেন্ট শরীফ লস্কর, সাহিত্য একাডেমির পরিচালক মোশাররফ হোসেন, গাঙচিল সাহিত্য একাডেমির সভাপতি খান শওকত, সেতু’র প্রেসিডেন্ট হাসান মাহমুদ দম্পতি, বাফা’র প্রেসিডেন্ট ফরিদা ইয়াসমিন, বাংলাদেশ সোসাইটির সাংস্কৃতিক সম্পাদক মণিকা রায়, আভা’র প্রেসিডেন্ট মেহের চৌধুরী, তারার আলো’র প্রেসিডেন্ট মিনা ইসলাম, আবৃত্তিকার মিথুন আহমেদ, কবি রিমি রুম্মান, মিলি সুলতানা, রীতা হাজেরা, শামীমআরা আফিয়া, কবিতা হোসাইন, ছন্দা বিনতে সুলতানা, কন্ঠশিল্পী সবিতা দাস, কবি ও সুরকার ইশতিয়াক রূপু আহমেদ, লেখক স্বপন বাসু, মাকসুদা আহমেদ সহ আরো অনেকে।

সংবাদ মাধ্যম হতে আসেন সাপ্তাহিক ঠিকানার অন্যতম কর্ণধার সাঈদ-উর-রব ও প্রধান সম্পাদক মুহাম্মদ ফজলুর রহমান, সাপ্তাহিক জন্মভূমির সম্পাদক রতন তালুকদার, সাপ্তাহিক বর্ণমালার প্রধান সম্পাদক মাহফুজুর রহমান, সাপ্তাহিক আজকাল সম্পাদক মনজুর আহমেদ, প্রবাস সম্পাদক মোহাম্মদ সাঈদ, সাপ্তাহিক বাংলা টাইমস সম্পাদক সঞ্জীবন কুমার সরকার, দৈনিক ইত্তেফাক ইউএসএ প্রতিনিধি এবং সাপ্তাহিক বাঙালী প্রতিনিধি সাংবাদিক শহীদুল ইসলাম, ফটোসাংবাদিক নিহার সিদ্দিকী, ইত্তেফাক সাংবাদিক ফরিদা ইয়াসমিন, সাপ্তাহিক আজকাল-এর বিপণন প্রধান আনিসুর রহমান, সাংবাদিক আম্বিয়া অন্তরা।

ইলেকট্রনিকস মিডিয়া থেকে এসেছিলেন টিবিএন ইউএস প্রতিনিধি শামীম আল আমিন, আরটিভি প্রতিনিধি আশরাফুল আলম বুলবুল, এটিএন বাংলা ইউএসএ বার্তা প্রযোজক সাংবাদিক কানু দত্ত সহ আরো অনেকে।

অনুষ্ঠানটির পৃষ্ঠপোষক ছিলেন: সিনিয়র ল কনসালটেন্ট নাসরিন আহমেদ, এ্যাটর্নী অশোক কর্মকার, শাহ নেওয়াজ, ডা. শাহাব আহমেদ এবং মেগাস্টার মিউজিক এন্ড এন্টারটেইনমেন্ট ইউএসএ। মিডিয়া পার্টনার ছিল টিবিএন ২৪, সাপ্তাহিক বাঙালী, সাপ্তাহিক জন্মভূমি এবং সাপ্তাহিক বর্ণমালা।

অনুষ্ঠানে সঙ্গীত পরিবেশন করেন দিলারা বেগম, ডা. নার্গিস আক্তার, জিনাত রহমান রত্না, বাবলী হক, রোজী আকতার এবং রওশন হাসান